রূপগঞ্জের অগ্নিকাণ্ডকে ‘হত্যাকাণ্ড’ বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সজীব গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান সেজান জুস কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৫২ শ্রমিকের মৃত্যুতে শোকের মাতম চলছে। শুক্রবার সকাল থেকে স্বজনদের আহাজারিতে কারখানার চার পাশের পরিবেশ ভারি হয়ে ওঠে। মর্মান্তিক এই ঘটনাকে হত্যাকাণ্ড উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে।

শনিবার (১০ জুলাই) দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে এসব কথা বলেন তিনি। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যে ঘটনাটি ঘটেছে অত্যন্ত হৃদয়বিদারক ও মর্মান্তিক। যারা মারা গেছেন তাদের আত্মার মাগফিরাত করছি। আশা করছি, যারা অসুস্থ, তারা ফিরে আসবেন।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় তিনটি তদন্ত কমিটি হয়েছে। তদন্তের পরই বলা যাবে কার দোষ কতটুকু। কিন্তু তদন্তে কারো নির্মাণ ত্রুটি, শ্রমিক পরিচালনায় ত্রুটি বা কেউ যদি সামান্যতম ভুলও করে থাকে, তবে তাকে ছাড় দেয়া হবে না।

এ সময় শিশুশ্রম নিয়ে প্রশ্ন করলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তদন্তে সেটি বেড়িয়ে আসলে অবশ্যই বিচার হবে। এদিকে ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, ভবনটিতে পর্যাপ্ত অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা ছিলো না, মানা হয়নি ভবন নির্মাণের নিয়মও। হাসেম ফুড অ্যান্ড বেভারেজ কারখানায় আগুনের ঘটনায় মালিক আবুল হাসেম, তার চার ছেলে ও সিইওসহ ৮জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

Be the first to write a comment.

Leave a Reply